বয়সের ছাপ। কোরিয়ানদের এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার রুটিন

এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার রুটিন

কুড়িতেই বুড়ি কথাটি সত্য না হলেও আমরা বাঙালিরা ৩০ এর পর নিজেদের একরকম বৃদ্ধাই মনে করি। ৩০ এর পর পরই নিজেদের ত্বকে যেন বলিরেখা এবং ফাইন লাইন উকি মেরে আমাদের বয়সের জানান দিয়ে দেয়। আর যাদের ড্রাই স্কিন তাদের এই সমস্যা যেন আরো জলদি এসে জানান দেয়। তাই বয়স ২৩ থেকে ২৫ এর মধ্যে আসতে না আসতেই বলিরেখা দূর করার জন্য স্কিন কেয়ার শুরু করে দেয়া উচিৎ। বয়সের ছাপ আসার পূর্বেই নিয়মিত স্কিন কেয়ারের মাধ্যমে ৩০ এর পরও বলিরেখা থেকে বেঁচে যাওয়া সম্ভব। আজ তাহলে জেনে নেয়া যাক বলিরেখা দূর করতে আর্লি এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার রুটিনের আদ্যন্ত।

কত বয়স থেকে এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার শুরু করবো?

সাধারনত যাদের ড্রাই বা সেনসিটিভ স্কিন তাদের ২৩ এর পর থেকেই স্কিন কেয়ার শুরু করে দেয়া উচিৎ। তবে অয়েলি স্কিনে যে এই সমস্যা দেখা দিবে না তেমন কিন্তু নয়। অয়েলি স্কিনে বয়সের ছাপ একটু দেরীতে দেখা দেয় তাই ২৫ এর পর থেকে অয়েলি স্কিনে এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার শুরু করে দেয়া উচিৎ।

কাদের জন্য এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার বেশি প্রয়োজন?

আগেই বলেছি ড্রাই স্কিনে বয়সের ছাপ জলদি পড়ে। ময়েশ্চার লক থাকে না বিধায় ড্রাই স্কিনে বলিরেখা ও ফাইন লাইন বেশি দেখা দেয়। তাই অয়েলি স্কিনের তুলনায় ড্রাই স্কিনে এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ার বেশি প্রয়োজন।

কি কি করতে হবে এন্টি এইজিং স্কিন কেয়ারের জন্য?

১। ক্লিঞ্জিং এবং স্ক্রাবিং

প্রতিদিনের ধুলা-ময়লা পরিষ্কারের জন্য একটি ভালো মানের ক্লিঞ্জার ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরী। ড্রাই স্কিনের জন্য ভিটামিন ই, এলোভেরা এবং গ্রীন টি সমৃদ্ধ ফেইসওয়াশ উপযোগী। ভিটামিন ই সমৃদ্ধ ফেইসওয়াশ ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে এবং ত্বককে টানটান রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও নিয়মিত স্ক্রাবিং এর মাধ্যমে ডেড স্কিন সেলস পরিষ্কার করা জরুরী। তবে বড় বিডস যুক্ত বা হার্শ ফরমুলার স্ক্রাবার এড়িয়ে চলুন। বড় বিডস যুক্ত স্ক্রাবার ত্বকের ইলাস্টিসিটি নষ্ট করে ত্বকের বলিরেখা আরো বাড়িয়ে তুলে। ড্রাই স্কিনের জন্য ক্লিঞ্জার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন Herb Day 365 Master Blending Foaming Cleanser Peach & Fig অথবা SKINFOOD-Rice Daily Brightening Cleansing Foam.

প্রোডাক্টটি পারচেজ করতে ভিজিট করুনঃ

The Face Shop Herb Day 365 Master Blending Foaming Cleanser Peach & Fig- 170ml

অথবা

Skinfood Rice Daily Brightening Cleansing Foam- 150ml

২। টোনার

টোনার আমাদের ত্বকের পি এইচ ব্যালেন্স ঠিক রাখে, রাফনেস রিপেয়ার করে এবং স্কিনের ইলাস্টিসিটি ধরে রাখে। আমরা অনেকেই টোনার এর ধাপটা বাদ দিয়ে যাই এটা ভেবে যে যেহেতু টোনার ত্বকের অয়েল প্রোডাকশন কন্ট্রোল করে তাই ড্রাই স্কিনে টোনার ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। এটি নিতান্তই ভুল ধারণা। টোনার ত্বকের সিবাম প্রোডাকশন কন্ট্রোল করার পাশাপাশি ত্বকের পিএইচ ব্যালেন্স বজায় রাখে যা ত্বককে টানটান এবং আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে। তাই বলিরেখা দূর করতে টোনারের ধাপটি বাদ দিয়ে গেলে চলবে না। ময়েশ্চারাইজিং টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন Green Tea Balancing Skin EX অথবা Pomegranate Visible Difference Moisture Toner

প্রোডাক্টটি পারচেজ করতে ভিজিট করুনঃ

Innisfree Green Tea Balancing Skin Ex- 200ml

অথবা

Farm Stay Pomegranate Visible Difference Moisture Toner- 350ml

৩। সিরাম

ত্বকের ময়েশ্চার ব্যালেন্স আর ফার্মনেস ঠিক রাখতে অ্যান্টি এজিং স্কিনকেয়ারে পেপটাইড সিরাম (Peptide Serum), রেটিনল (Retinol), অ্যাসকরবিক এসিড (ভিটামিন সি), হায়ালুরোনিক এসিড (Hyaluronic acid) ইত্যাদি যুক্ত সিরাম অনেক উপকারী। বলিরেখা দূর করার জন্য এমন সিরাম ব্যবহার করা উচিৎ যা ত্বকের ময়েশ্চার লক করে ত্বককে দীর্ঘ সময় আর্দ্র রাখবে এবং ত্বকের ড্রাইনেস দূর করে ত্বকের রুক্ষ ভাব দূর করে দিবে। ময়েশ্চারাইজিং সিরাম হিসেবে বাজারের দুটি বেস্ট সিরাম হচ্ছে Innisfree Green Tea Seed Serum এবং Innisfree Perfect 9 Repair Serum EX

প্রোডাক্টটি পারচেজ করতে ভিজিট করুনঃ

Innisfree Green Tea Seed Serum- 80ml

অথবা

Innisfree Perfect 9 Repair Serum Ex- 50ml

৪। ময়েশ্চারাইজার

অ্যান্টি এজিং স্কিন কেয়ারে ময়েশ্চারাইজার কোনোভাবে বাদ দেয়া যাবে না, কেননা বয়সের সাথে সাথে ত্বকের সিবাম (ন্যাচারাল অয়েল) প্রোডাকশন কমে যায় আর স্কিন ড্রাই হতে শুরু করে। প্রোপার হাইড্রেশনের অভাবে ফাইন লাইন, রিংকেল, ডার্ক প্যাঁচ সহ আরও অনেক স্কিন প্রবলেম দেখা দেয়। কোলাজেন আর ইলাস্টিন প্রোটিন সমৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজার স্কিনকে স্মুথ করে আর রিংকেল কমাতে সাহায্য করে এমন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। বিখ্যাত কোরিয়ান ব্র্যান্ড innisfree এর দুটি ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার হচ্ছে innisfree Jeju Orchid Enriched Cream এবং INNISFREE Green Tea Seed Cream

প্রোডাক্টটি পারচেজ করতে ভিজিট করুনঃ

Innisfree Jeju Orchid Enriched Cream- 50ml

অথবা

Innisfree Green Tea Seed Cream- 50ml

৫। সান্সক্রিন

সূর্যের ক্ষতিকারক ইউভিএ এবং ইউভিবি রশ্মি থেকে সুরক্ষার জন্য সানস্ক্রিন ব্যবহার করাটা বাধ্যতামূলক। সানস্ক্রিন কিন্তু শুধু ত্বককে সানবার্ন থেকেই রক্ষা করে না বরং এটি প্রিম্যাচিউর স্কিন এজিং–কে দূরে রাখে এবং স্কিন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। প্রোটেকটিং পার্ট টা বাদ দিলে স্কিনকে যতই নারিশমেন্ট করুন, সেটা লং লাস্টিং হবেনা। এর পেছনে সায়েন্টিফিক কারনটা হচ্ছে সূর্যরশ্মির প্রভাবে ত্বকের কোলাজেন ভেঙ্গে যায়, যেটা ইলাসটিনে প্রভাব ফেলে চামড়া পাতলা আর শুষ্ক করে দেয়। তাই বলিরেখা দূর করার জন্য সান্সক্রিনের ব্যবহার অত্যন্ত জরুরী। ড্রাই স্কিনের জন্য উপযোগী দুটি সান্সক্রিন হলো All Around Safe Block Essence Sun Milk SPF50+/PA+++ এবং 3W clinic intensive UV sunblock cream

প্রোডাক্টটি পারচেজ করতে ভিজিট করুনঃ

Missha Essence Sun Milk- 70ml

অথবা 

3w Clinic Intensive UV Sunblock Cream- 70ml

সুতরাং আমরা দেখলাম কি কি কোরিয়ান পন্য দিয়ে বয়সের ছাপ কমানো যায়। বয়সের ছাপ নিয়ে আজকাল অনেকেই দুশ্চিন্তার মধ্যে থাকেন। আশা করা যায় উপরোক্ত পন্য সমূহ সঠিক ভাবে ব্যাবহার করে যথাযথ ফলাফল পাওয়া যাবে।

1 I like it
1 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *