ত্বকের জন্য সিরামাইডস

সিরামাইডস আসলে শরীরের একটি ফ্যাটি এসিডেরই নাম যাকে লিপিডসও বলা হয়ে থাকে। স্কিনের কোষেই এগুলা প্রাকৃতিকভাবেই পাওয়া যায়। তবে স্কিনকেয়ারে সিরামাইডস দারুণ কার্যকরী একটি উপাদান। সিরামাইডস স্কিনে ময়েশ্চার লক করে এবং স্কিনের ড্রাইনেস ও ইরিটেশন দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও, এনভায়রনমেন্টাল ড্যামেজ থেকে স্কিনকে রাখে সুরক্ষিত।

উপকারিতা 

সময়ের সাথে সাথে শরীর থেকে সিরামাইডস দূর হয়ে যায়। তাই, আলাদাভাবে এই পুষ্টি উপাদান শরীরে নিতে হয়। সিরামাইডস স্কিনের যেসব উপকার করে থাকে –

  • স্কিনের ময়েশ্চারের যোগান দেয়;
  • স্কিনের ড্রাইনেস ও ইরিটেশন দূর করে;
  • এনভায়রনমেন্টাল ড্যামেজ থেকে স্কিনকে সুরক্ষা দেয়;
  • অ্যান্টি-এজিং হিসেবে কাজ করে।

ব্যবহারবিধি 

ড্রাই স্কিনের জন্য সিরামাইডস বেশ কার্যকর একটি পুষ্টি উপাদান। তবে লোশন ব্যবহারের চাইতে ক্রিম ও ওয়েনমেন্ট ব্যবহার করা জরুরী, কেননা ক্রিমে বেশি ময়েশ্চার ভাব থাকে। সাধারণত রাতের বেলা স্কিনের ময়েশ্চার ধরে রাখতে এমন পুষ্টি উপাদান অত্যন্ত কার্যকর। আবার অনেক ক্লিনজারেও সিরামাইডস থাকে। আর, অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস, পেপটাইড এবং রেটিনলের সঙ্গে মিশে এটি স্কিনের জন্য দারুণ কাজ করে থাকে।

সাবধানতা 

যেহেতু এটি একটি প্রাকৃতিক পুষ্টি উপাদান, তাই এটি অনেক নিরাপদ বলেই ধারণা করা হয়ে থাকে। তা সত্ত্বেও, বিশেষজ্ঞরা ব্যবহারের পূর্বে প্যাচ টেস্ট করে নিতে বলেন।

0 I like it
0 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *