মুখের পোরস নিয়ে সমস্যা? দূর হবে এখন নিমিষেই

মুখের পোরস নিয়ে সমস্যা? দূর হবে এখন নিমিষেই

পোরস দূর করার উপায়

পোরস হচ্ছে আপনার ত্বকের ছোট ছোট ছিদ্র যেগুলো থেকে তেল ও ঘাম নিঃসরণ হয়ে থাকে। পোরসকে বাংলায় লোমকূপ বলা হয়ে থাকে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের মুখের কিছু লোমকূপ বড় হয়ে যায়। লোমকূপ বড় হওয়ার কারণে যেসব সমস্যা দেখা দিতে পারে, সেগুলো হলো-

  • ব্রণ
  • সেবাম উৎপাদন বৃদ্ধি যার কারণে ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যায়
  • সান ড্যামেজ 
  • ব্ল্যাক হেডস

পোর সাইজ কন্ট্রোল করতে করণীয় 

এটা আপনিও জানেন যে পোরস নিমিষেই শেষ করা সম্ভব না, কিন্তু সঠিক পদ্ধতির মাধ্যমে আপনি এর ভিসিবিলিটি কমিয়ে আনতে পারেন।

১. জেল ক্লিনজার ব্যবহার

পোরস ছোট করতে স্কিন কেয়ার রুটিনে প্রথম ধাপটি হলো সঠিক ক্লিনজার নির্বাচন করা। আপনার ত্বক যদি সেনসিটিভ অর্থাৎ সংবেদনশীল হয়ে থাকে তাহলে আপনার জেল ক্লিনজার ব্যবহার করা উচিত। জেল ক্লিনজার আপনার ত্বককে গভীরভাবে পরিষ্কার করে ও পোরসগুলোকে বাড়তে দেয় না। সেনসিটিভ স্কিন অতিরিক্ত ধোয়া হয়ে গেলে সহজেই ডিহাইড্রেট হয়, তাই আপনি একবারই ক্লিনজার ব্যবহার করুন। যেকোনো ধরনের স্কিনকেয়ার পণ্য প্রয়োগ করার আগে হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

Cosrx Low pH Good Morning Gel Cleanser- 150ml

 

২. ওয়াটার-বেজড পণ্য ব্যবহার

পোরস বড় হওয়ার কারণে ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যায়। তাই ওয়াটার-বেজড প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন। তেল-ভিত্তিক পণ্য আপনার ত্বকের তেলের নিঃসরণ বাড়িয়ে দিতে পারে আর ফলে পোরস বড় হয়। তাই তেল-ভিত্তিক পণ্য বর্জন করে ওয়াটার-বেজড প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন।

৩. সকাল-সন্ধ্যা ময়েশ্চারাইজার 

আপনার ত্বকের ধরন বা ত্বকের সমস্যার বিষয়গুলি বিবেচনা ছাড়াই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার আপনার দৈনন্দিন স্কিন কেয়ার রুটিনের অংশ হওয়া উচিত।আর্দ্রতা ছাড়া ময়লা, তেল এবং মেকআপ অনেক সহজেই আপনার ত্বকে আক্রমণ করতে পারে। নিয়মিত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারে আপনার পোরসগুলোর বড় হওয়া রোধ করবে। তাছাড়া, ময়েশ্চারাইজার আপনার ত্বককে হাইড্রেট এবং নরম করতে সাহায্য করে।

৪. এক্সফোলিয়েশন

পোরস বড় হওয়া রোধ করতে সপ্তাহে একবার এক্সফোলিয়েট করুন। আপনার ত্বক যেকোনো ধরনেরই হোক না কেন, ত্বকের সুস্থতার জন্য এক্সফোলিয়েশন অনেক জরুরি। এক্সফোলিয়েশনের জন্য আপনি মাস্ক বা স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন। এক্সফোলিয়েশনের ফলে আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও মৃত কোষ ঝরে যায়, এর ফলে পোরসগুলো বড় হয় না। আপনার যদি প্রাকৃতিকভাবে তৈলাক্ত ত্বক থাকে তবে আপনি নিজের ত্বককে সতেজ রাখতে সপ্তাহে দু’বার এক্সফোলিয়েশন করতে পারেন। আপনার ত্বক শুকিয়ে যাওয়া এড়াতে সপ্তাহে দু’বারের বেশি এক্সফোলিয়েট না করার চেষ্টা করুন।

৫. সানস্ক্রিন ব্যবহার 

সানস্ক্রিন আপনার ত্বককে সূর্যের রশ্মি থেকে রক্ষা করে ও হাইড্রেটেড রাখে। আপনি যদি বেশিরভাগ সময় বাইরে থাকেন তাহলে কয়েকবার সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। বাসায় ফেরার পল হালকা গরম পানি দিয়ে আপনার মুখ ধুয়ে ফেলুন। অধিকাংশ সানস্ক্রিন যেহেতু অয়েলি থাকে তাই গরম পানি দিয়ে মুখ ধোয়ার সাথে সাথে আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল পরিষ্কার হয়ে যাবে।

উপরের ধাপগুলো সঠিকভাবে মেনে চললে আপনার পোরস খুব সহজেই দূর হয়ে যাবে। তাছাড়া, ভালো ঘুম, নিয়মিত স্কিন কেয়ার ও সঠিক ডায়েট করতে ভুলবেন না।

📞 ত্বকের সমস্যার জন্য প্রোডাক্ট সাজেশন পেতে কল করুনঃ 01790 270066 অথবা ইনবক্স করুন। 
🌐 ১০০% অরিজিনাল কোরিয়ান প্রোডাক্টঃ https://chardike.com/product-tag/pores-minimize/
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © chardike blog 2021
0 I like it
0 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *