অফিসে যেতে লেইট হচ্ছে? টিপটপ রেডি হওয়ার কিছু টিপস

late female employees

কেউ যদি আমাকে জিজ্ঞেস করে এই পৃথিবীর মধ্যে স্বর্গীয় সুখ কোথায় পাওয়া যায়? আমি বলবো সকাল বেলার মিষ্টি ঘুমে। কিন্তু কর্মজীবনে প্রবেশের পর সকালের ঘুমের সুখ কেমন হয় তা যেনো ভুলেই যেতে হয়। আর এই বাড়তি ৫ মিনিটের ঘুমের জন্য অফিসে যেতে লেইট হয় না এমন মানুষ খুব কমই খুঁজে পাওয়া যায়। আর এর সাথে সংসার জীবন যাদের সামলাতে হয় তাদের তো ভোর থেকে শুরু হয় দৌড়ঝাপ। আর এই সকল কিছুর মাঝে সকাল সকাল অফিসের জন্য রেডি হওয়া বিরাট ঝামেলা। হয়তো অনেক সময় কোন জামাটা পড়বো এটা ভাবতেই ভাবতেই অনেকটা সময় নষ্ট হয়ে যায়। তাই আজ আমি আপনাদের দিবো ছোট কিছু টিপস যা আপনাকে কম সময়ে টিপটপ রেডি হতে সাহায্য করবে।

১। ড্রেস গুছিয়ে রাখুন আগের রাতে
মনে আছে ছোট বেলায় আমরা বিশেষ দিনগুলোতে কিভাবে আগের রাতে জামা গুছিয়ে রাখতাম? জ্বি, এখন আমাদের ফিরে যেতে হবে ছোটবেলার বিশেষ দিনগুলোতে। আগের রাতে যতই ক্লান্ত লাগুক না কেনো ১০ মিনিট সময় নিয়ে সকালে কি পড়ে অফিস যাবো সেটা ইস্ত্রি করে গুছিয়ে রাখলে সকালে অনেকটা সময়ই বেঁচে যায়। আরো সুবিধা হয় যদি সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সপ্তাহের ৬দিনের জন্য জামা আলাদা করে গুছিয়ে রাখলে। এতে প্রতিরাতে আর বাড়তি ঝামেলার দরকার পরে না।

২। ঝটপট হেয়ার স্টাইল
সকাল বেলা চুল সেট করার থেকে ঝামেলা আর কিছুতে আছে বলে মনে হয় না। স্ট্রেইট, কার্ল বা এমন কোনো হেয়ার স্টাইলিং প্রতিদিন সকালে করা অসম্ভব। তাই চুলের জন্য প্রয়োজন ঝটপট কোনো হেয়ার স্টাইল। আপনার চুল যদি ম্যানেজেবল হয়ে থাকে তাহলে হালকা ব্লো ড্রাই করে চুল খোলা রাখলে আপনাকে দিবে সিম্পলের ভিতর ক্লাসি একটি লুক। তবে চুল খোলা রেখে কাজ করতে অনেকেরই ঝামেলা মনে হয়, সেক্ষত্রে মাঝে বা সাইডে সিঁথি করে একটা হাত খোপা বা সব চুল মাথার উপরে নিয়ে একটি মেসি বান আপনাকে দিবে একটি ক্লাসি ট্রেন্ডি লুক।

৩। চোখের সাজ হোক হালকা কিছু
আইলাইনার বা কাজল ব্যবহার করি না এমন মেয়ে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। শুধু একটু আইলাইনার আমাদের চোখের সৌন্দর্য অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু সুন্দর করে চোখ আঁকা একটা আর্ট, আর আর্ট কখনো জলদি হাতে করা যায় না। তাই প্রতিদিনের মেকআপে আইলাইনার দেয়া বাড়তি ঝামেলা। আর সারাদিনের দৌড়ঝাঁপ শেষে আইলাইনার চোখের চারপাশ আরো কালো করে দেয়। তাই প্রতিদিনের আই মেকআপ হোক একটু ভিন্ন। হালকা একটু ন্যুড আইশেড এবং আইল্যাশে দুই কোট মাশকারা ব্যবহার করলে একদম ন্যাচারাল লুকেও চোখের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলবে। শুধু মাশকারা ব্যবহারে চোখকে কিঞ্চিৎ বড় দেখায় এবং হালকা একটু ন্যুড আইশেড আনে একটি স্নিগ্ধভাব।

৪। শুধু লিপস্টিক দিয়ে গরজিয়াস লুক
আজকাল লিপস্টিক ছাড়া আমরা একদমই অচল। একদম ভারী মেকআপ করলেও লিপস্টিক ব্যবহার না করলে পুরো মেকআপটাই মাটি হয়ে যায়। আবার শুধু লিপস্টিক ব্যবহারেই আপনাকে দেখাবে গরজিয়াস। তাই সকালে সময় না থাকলে শুধু লিপস্টিক দিলেই আপনার চেহারায় অনেকটা পার্থক্য এনে দিবে। এক্ষেত্রে গাঢ় রঙের লিপস্টিক আপনাকে একটি ফ্রেশ লুক আনতে সাহায্য করবে। একদম ন্যাচারাল চেহারায় ব্যবহার করতে পারেন লাল বা মেরুনের কোনো শেড, এতে আপনার ঠোঁটের শেইপ সুন্দর দেখাবে এবং লাল বা মেরুনের শেড ত্বকে এনে দেয় একটা ইনস্ট্যান্ট গ্লো ।

৫। ফাউন্ডেশনের বদলে শুধু কনসিলার দিয়ে বেইজ মেকআপ
ফেইসে পিগমেন্টেশন বা ডার্ক সার্কেল থাকলে ফাউন্ডেশন যেনো মাস্ট হ্যাভ প্রোডাক্ট। কিন্তু সকাল সকাল ফাউন্ডেশন বসানোর এত সময় কই? তাই ব্যবহার করুন নিজের স্কিন টোনের কাছাকাছি একটি কনসিলার যা অল্প সময়ের মধ্যেই আপনার ডার্ক সার্কেল এবং পিগমেন্টেশন হাইড করতে সাহায্য করবে। ত্বকের অসমান ভাব দূর করতে এর সাথে ব্যবহার করতে পারেন হালকা একটু বি বি ক্রিম যা ভালো মত ব্লেন্ডিং এর ঝামেলা ছাড়াই আপনাকে দিবে ফুল কভারেজ।

1 I like it
0 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *