কোরিয়ান স্কিন কেয়ারে স্নেইল মিউসিনের ব্যবহার

কোরিয়ান স্কিন কেয়ারে স্নেইল মিউসিনের ব্যবহার

সময়ে অসময়ে স্কিন কেয়ার দুনিয়ায় যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন উপাদান। বর্তমানে সেই উপাদানগুলোর মধ্যে তাদের মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে স্নেইল মিউসিন। কোরিয়ান স্কিন কেয়ারের সাথে আমরা সবাই খুব ভালোভাবেই পরিচিত। কিন্তু অনেকেই স্নেইল মিউসিন সম্পর্কে যথেষ্ঠ ধারণা রাখেন না। আবার অনেকে ধারণা রাখলেও তা এড়িয়ে যান। শামুকের নাম শুনলে কখনোই স্কিন কেয়ারের চিন্তা মাথায় আসে না। তবে এই ব্লগটি পড়ার পর আপনি স্কিন কেয়ারে শামুকের কার্যকারিতা সম্পর্কে জানতে পারবেন।

স্নেইল মিউসিন কী?

স্নেইল মিউসিন হচ্ছে শামুক থেকে নির্গত জেল যা আমাদের ত্বকে আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে। স্নেইল মিউসিন ময়েশ্চারাইজারের কাজ করে থাকে। শুধু তাই নয়, শামুক থেকে নির্গত এই জেল আমাদের ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা খুব সহজেই কমিয়ে আনে। আরেকটি চমৎকার বিষয় হলো যে স্নেইল মিউসিন যেকোনো ধরনের ত্বকেই ব্যবহার করা যায়।

Cosrx Advanced Snail 96 Mucin Power Essence- 100ml

স্নেইল মিউসিনে কোন কোন উপাদান রয়েছে?

রেটিনোল, গ্লাইকোপ্রোটিন, হায়ালুরোনিক অ্যাসিড, ভিটামিন-সি এবং গ্লাইকোলিক অ্যাসিড।

কিভাবে স্নেইল মিউসিন ব্যবহার করবেন?

আপনি স্নেইল মিউসিন কিভাবে বা কতবার ব্যবহার করবেন তা ভিত্তি করে আপনি এর ব্যবহারে কি লাভ আশা করছেন তার উপর। আপনি যদি আপনার ত্বকের আর্দ্রতার জন্য ব্যবহার করে থাকেন তাহলে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে একবার ব্যবহার করাই শ্রেয়। শয়নকালে স্নেইল মিউসিন আপনার ত্বকের হাইড্রেশন করে থাকে। 

আপনি যদি এন্টি-এজিংএর উদ্দেশ্যে স্নেইল মিউসিন ব্যবহার করতে চান তাহলে সিরামের সাথে মিশিয়ে দিনে ও রাতে ক্লিনজিংয়ের পর অন্য কোনো প্রোডাক্ট মুখে লাগানোর আগে ব্যবহার করুন। 

স্নেইল মিউসিন ব্যবহারের উপকারিতা

১. ত্বককে আর্দ্র করতে সাহায্য করে।

২. স্ট্রেস মার্ক্স্, বলিরেখা ইত্যাদি কমিয়ে অ্যান্টি এজিং এ সাহায্য করে ।

৩. ত্বকের মৃত-কোষ পরিষ্কার করে ত্বককে মসৃণ রাখতে সাহায্য করে।

৪. ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।

৫. ত্বকে ভিটামিন ও মিনারেলজাতীয় উপাদান সরবরাহ করে।

কোরিয়ান স্কিন কেয়ার রুটিনে স্নেইল মিউসিনের ব্যবহার খুব বেশি সারা ফেলেছে। আপনার ত্বক যেকোনো ধরনেরই হোক না কেন স্নেইল মিউসিন আপনার ত্বকের কোনো ক্ষতি করবে না। বরং আপনি লাভবান হবেন। স্নেইল মিউসিন সম্পর্কে কম ধারণা থাকায় স্কিন কেয়ারে আমরা বাঙালিরা হয়তো অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছি। আশা করি এই ব্লগটি পড়ার পর আপনাদের আর পিছিয়ে থাকতে হবে না।

1 I like it
0 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *