কোন বয়সে রেটিনল ব্যাবহার করতে হবে

Close-up image of organic cosmetics brand owner opening bottle of new innovative rejuvenating product

কোন বয়সে রেটিনল? সাধারনত ২৫ বছরের পর থেকেই স্কিনে পরিবর্তন আসতে শুরু করে। কোলাজেন প্রোডাকশন কমতে শুরু করে, কিছু ফাইন লাইনস, রিংকেলস দেখা দিতে শুরু করে। তবে এসব স্কিনের সারফেসে ভিজিবল হওয়ার আগে ইন্টারনাল চেইঞ্জ অনেক আগে থেকেই শুরু হয়। পরে সেটার ছাপ স্কিনে দেখা দেয়। তাই অনেকের মনেই প্রশ্ন থাকে স্কিনের এজিং প্রসেস স্লো করা যায় কি না, স্কিন কে প্রিম্যাচিউর এজিং ঘেকে প্রোটেক্ট করা যায় কি না। উত্তর হলো, এটা সম্ভব। স্কিনকেয়ার স্পেশালিস্ট বা ডার্মাটোলজিস্টরা স্কিনের কোলাজেন প্রোডাকশন বাড়াতে, স্কিন ইলাস্টিসিটি ইমপ্রুভ করতে বেশ কিছু অ্যান্টি এজিং ইনগ্রেডিয়েন্ট স্কিনকেয়ার প্রোডাক্টে অ্যাড করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এসব ইনগ্রেডিয়েন্ট স্কিনকে হেলদি রাখে, স্কিনের ন্যাচারাল ব্রাইটনেস ধরে রাখতে হেল্প করে, পোরস, রিংকেলস, ফাইন লাইনস ভিজিবিলিটি কমাতে বেশ ভালো ভূমিকা পালন করে। তাই বেশিরভাগ স্কিন সচেতন মানুষরা ২৩ এর পর থেকেই স্কিনকেয়ার রুটিনে অ্যান্টি এজিং প্রোডাক্টস অ্যাড করতে পছন্দ করে।

স্কিন এ এজিং প্রসেস শুরু হয়েছে এটার আভাস প্রথমে পাওয়া যায় চোখের আশেপাশে। চোখের চারপাশ এর এরিয়াতে ফ্যাট কমতে শুরু করে, রিংকেলস একটু একটু বোঝা যায়। এরপর স্মাইল লাইনস, ফাইন লাইনস ভিজিবল হতে শুরু করে। স্কিনকেয়ার জগতে Retinol অনেকটা বস হিসেবে কাজ করে। কারন Retinol হলো অ্যান্টি এজিং ইনগ্রেডিয়েন্টগুলোর মধ্যে বেস্ট যা একইসাথে একনে ব্রেকআউট, একনে, হাইপারপিগমেন্টেশন ও স্কিন ব্রাইটনেস এর উপর কাজ করে।

Retinol ও Retinoid এর মধ্যে পার্থক্য

Retinol ও Retinoid এর মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। রেটিনল এক ধরনের Retinoid যা Vitamin A Derivative। একই কথা Retinoic Acid এর ক্ষেত্রেও প্রোযোজ্য।

তবে রেটিনল ব্যবহারের কিছু নিয়ম আছে আবার কিছু ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে যাতে ভালোর বদলে খারাপ কিছু না হয়। বিশেষ করে প্রেগন্যান্ট অবস্থায় রেটিনল ইউজ করা রেকমেন্ড করা হয়না। আবার রিসেন্টলি যিনি মা হয়েছেন তার জন্য ও রেটিনল ইউজ করা ডার্মাটোলজিক্যালি অ্যাপ্রুভড না।

যাদের মাইল্ড একনে, সানবার্ন, হাইপারপিগমেন্টেশন, ডার্ক স্পটস রয়েছে তাদের জন্য রেটিনল বেশ ভালো কাজ করে। যারা বিশ বছর বয়স এর পর থেকে এজিং সমস্যা ফেইস করে তারা রেটিনল ইউজ করতে পারে কিন্তু খুব অল্প পরিমানে। সাধারনত ০.২-০.৫% রেটিনল বিগিনার রেটিনল ইউজারদের সাজেস্ট করা হয়।

আবার স্কিন টাইপ অনুযায়ী রেটিনল যুক্ত প্রোডাক্ট ইউজ করা যেতে পারে। যেমন অয়েলি একনে প্রোন স্কিনে লাইটওয়েট সেরাম বা ময়শ্চারাইজার, ড্রাই স্কিনে ক্রিমি টেক্সচারড অথবা অয়েল এক্সট্র্যাক্ট যুক্ত কিছু এবং কম্বিনেশন স্কিনে দুই ধরনেরই প্রোডাক্ট সিজন বেসিস এ ইউজ করা যায়।

কিছু স্টেপ ফলো করে রেটিনল এর কার্যকারিতা বাড়ানো যায় যেমন:

  • Retinol ইউজের প্রথমদিকে কখনোই রেগুলার ইউজ করা যাবেনা। প্রথমে উইকে দুই দিন, তারপর চার দিন এভাবে দিনের সংখ্যা বাড়ানো যায়। আবার যেকোনো অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট যুক্ত প্রোডাক্ট রাতে ইউজ করা ভালো কারন দিনে অ্যাক্টিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট UV Rays এর সাথে কনফ্লিক্ট করতে পারে। এতে স্কিনে ইরিটেশন হতে পারে।
  • খুব অল্প অ্যামাউন্ট থেকে ইউজ করা শুরু করতে হবে। প্রথমে কয়েক মাস ২-৩ ড্রপ (যদি সেরাম হয়) এবং মটর দানার সমান (যদি ময়শ্চারাইজার হয়)। ভালো হয় যদি প্রথমে jawline এ আগে অ্যাপ্লাই করা হয়।
  • Retinol ইউজের সময় একনে প্রোন স্কিনে পার্জিং হতে পারে। ১০০ এর ভেতর ২০ জন মানুষ পার্জিং এর সমস্যায় ভোগে। তবে যেকোনো ইনগ্রেডিয়েন্ট অন্তত তিন মাস ইউজ করা উচিৎ। এতে ঠিকঠাক ফলাফল বোঝা যায়।
  • স্কিনে Retinol যখন ইউজ করা হয় তখন অন্য অ্যাক্টিভ কিছু ইনগ্রেডিয়েন্ট যেমন Benzoyl peroxide
  • Salicylic acid, Alpha hydroxy acids, Scrubs এবং Exfoliators অ্যাভয়েড করা ভালো। এতে স্কিনে রেডনেস ও ইরিটেশন বেড়ে যেতে পারে।
  • স্কিনকে সবসময় ময়শ্চারাইজড রাখতে হবে।
  • দিনের বেলা অবশ্যই স্কিনে সানস্ক্রিন অ্যাপ্লাই করতে হবে। SPF 30 অথবা তার থেকে বেশী SPF যুক্ত সানস্ক্রিন দুই ঘন্টা পর পর অ্যাপ্লাই করতে হবে। ঘরে থাকলে তিন বা চার ঘন্টা পর পর করলেও চলে।
  • স্কিনে যদি কোনো লেজার ও পিলিং ট্রিটমেন্ট করার দরকার হয় তাহলে তার ১ সপ্তাহ আগে থেকে Retinol ইউজ করা বন্ধ করে দিতে হবে।
  • প্রেগন্যান্ট অবস্থায় রেটিনল ইউজ না করাই ভালো।
  • Retinol ইউজে্র সাইড ইফেক্ট গুলো নিয়ে ধারনা থাকা ভালো। প্রথম রেটিনল ইউজার হলে স্কিনে ইরিটেশন, রেডনেস, ইচিনেস, ড্রাইনেস দেখা দিতে পারে। কয়েক সপ্তাহ যাওয়ার পর সেটা আপনা আপনি ঠিক হয়ে যায়।
  • You can buy Retinol based skincare products here

তাহলে আমরা জানলাম ঠিক কোন বয়সে রেটিনল ইউজ করা যাবে। কোন বয়সে রেটিনল এ নিয়ে যাবতীয় প্রশ্নের সমাধান পেয়েছি বলে আশা করা যায়।

Chardike.com is importing these moisturizers/creams directly from Korea in Bangladesh. Authentic Night creams which are used to remove the aging effect on the face and other body parts. You can select any of the given items depending on the skin types. All these night creams are available on our website. VISIT OUR SITE

Reference:

1 I like it
0 I don't like it

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *